রবি. অক্টো. ২৫, ২০২০

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় চীন-যুক্তরাষ্ট্র একসঙ্গে কাজ করছে: ট্রাম্প

Read Time:2 Second

সম্প্রীতি বার্তা: করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় চীন ও যুক্তরাষ্ট্র একসঙ্গে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার (২৭ মার্চ) এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প জানান, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে করনীয় বিষয়ে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে তার। ট্রাম্প তার টুইট বার্তায় লিখেন, চীন এসবের মধ্য দিয়ে গেছে এবং ভাইরাসটির বিষয়ে তাদের জানাশুনা বেশি। এ বিষয়ে আমরা একসঙ্গে কাজ করছি।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিদিন বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের ঘটনা। যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৮৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে যা ভাইরাসটির উৎপত্তিস্থল চীনের চেয়েও কয়েক হাজার বেশি। এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) তাদের এক হুঁশিয়ারি বার্তায় জানায়, নোভেল করোনাভাইরাসের নতুন কেন্দ্রবিন্দু হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৩০০ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড আক্রান্তের সংখ্যা

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের মোট সংখ্যা চীনকেও ছাড়িয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫ হাজার ৬০০ জন। উল্লেখ্য, ভাইরাসটির উৎপত্তিস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ২৮৫ জন। কোভিড-১৯ এ আক্রান্তের সংখ্যার দিক থেকে যুক্তরাষ্ট্র রয়েছে সবার শীর্ষে।

চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মতই ৮০ হাজারেরও বেশি আক্রান্ত হয়েছেন ইতালিতে। তবে চীনে ভাইরাসটির প্রকোপ কমলেও যুক্তরাষ্ট্র ও ইতালিতে এখনও আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন কয়েক হাজার হারে বাড়ছে।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে ইতালিতে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৮ হাজার ২১৫ জন। এছাড়া স্পেনে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৩৬৫ জনের।

মার্কিন সিনেটে ঐতিহাসিক প্রণোদনা প্যাকেজ পাস

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে শ্লথ অর্থনীতিতে গতি আনতে ও রোগটির মোকাবিলায় চিকিৎসা খাতকে উন্নত করতে এক ঐতিহাসিক প্রণোদনা প্যাকেজ পাস হলো সিনেটে। এ প্যাকেজটির আকার ২ দশমিক ২ ট্রিলিয়ন ডলার যা যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জরুরী প্রণোদনা প্যাকেজ। বুধবার (২৬ মার্চ, স্থানীয় সময়) সিনেটের এক সভায় ৯৬-০ ভোটে বিলটি পাস হয়।

করোনা-ধাক্কা কাটাতে ৫ ট্রিলিয়ন ডলার দেবে জি-২০

দেশে দেশে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের কারণে যে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দা দেখা যাচ্ছে, তা ঠেকাতে বিশ্ব অর্থনীতিতে পাঁচ ট্রিলিয়ন ডলারেরও বেশি অর্থ ঢালার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে জি-২০ রাষ্ট্রগুলো। শুধু তাই নয়, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাব ঠেকাতে ‘যা কিছু করা প্রয়োজন’, তার সবই করার অঙ্গীকারও করেছে বিশ্বের প্রায় ৮৫ শতাংশ জিডিপি ধারণকারী শীর্ষ ২০টি রাষ্ট্রের আর্থিক খাতের প্রতিনিধিদের এই জোট।

0 0
Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleppy
Sleppy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।